পুতিনের হুঁশিয়ারির পর সংলাপের প্রস্তাব দিল চীন

নিউজটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পশ্চিমা বিশ্ব ‘পারমাণবিক ব্ল্যাকমেইল’ অব্যাহত রাখলে বিপুল অস্ত্রভাণ্ডারের পুরো শক্তি ব্যবহার করে রাশিয়া প্রতিক্রিয়া দেখাবে- রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের এ হুঁশিয়ারি দেওয়ার পর বিশ্বজুড়ে ব্যাপক উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। এ উদ্বেগ নিরসনেসব পক্ষকে সংলাপে বসার পাশাপাশি পরামর্শ ও নিরাপত্তা উদ্বেগ মোকাবিলার উপায় খুঁজে বের করার আহ্বান জানিয়েছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন বলেন, ইউক্রেন সংকটে চীনের অবস্থান সুসংগঠিত এবং পরিষ্কার।

এর আগে, জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো রিজার্ভ সৈন্যদের ফের সামরিক বাহিনীতে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানান রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট।

তিনি বলেন, যদি আমাদের আঞ্চলিক অখণ্ডতা হুমকির মুখোমুখি হয় তাহলে আমাদের জনগণকে রক্ষায় সম্ভাব্য সব উপায় ব্যবহার করবো। এটা কোনো ধাপ্পাবাজি নয়। রাশিয়ার কাছে ‘জবাব দেওয়ার মতো বিপুল অস্ত্র’ আছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, রিজার্ভ বাহিনীর আংশিক সমাবেশে তিন লাখ সৈন্যকে ডাকা হবে এবং যাদের পূর্ববর্তী অভিজ্ঞতা আছে তাদের মোতায়েন করা হবে।

পুতিনের আংশিক সমাবেশের এ ঘোষণা ইউক্রেন ঘিরে যে সমংঘাত চলছে তা আরো উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়িয়ে তুলেছে। আর পুতিন এ ঘোষণা এমন এক সময় দিয়েছেন যখন ইউক্রেনীয়দের পাল্টা আক্রমণে রুশ সৈন্যরা পিছু হটতে এবং কিছু দখলকৃত অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছে।

আজকালের কন্ঠ /আরএস

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »