প্রকল্পের পেছনে যেসব বিজ্ঞানী বা উদ্ভাবক রয়েছে


আজকালের কণ্ঠ প্রকাশের সময় : জুন ২২, ২০২৩, ৪:৫৮ অপরাহ্ন /
প্রকল্পের পেছনে যেসব বিজ্ঞানী বা উদ্ভাবক রয়েছে

আজকালের কন্ঠ ডেস্ক : বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেছেন, শুধু প্রদর্শনীই নয়, প্রকল্পের পেছনে যেসব বিজ্ঞানী বা উদ্ভাবক রয়েছে তাদের দক্ষতা, যোগ্যতা ও সততা প্রযোজন। আগামীতে বিজ্ঞানের ক্রমাগত পরিবর্তনশীলতার জন্য কর্তমান তরুণ প্রজন্মকে দৃঢ় চ্যালেঞ্জ নিতে হবে। তিনদিনব্যাপী ৪৪তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার সমাপনি ও পুরস্কার বিতরণ পর্বে প্রধান অতিথির বঋতায় তিনি একথা বলেন।

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁয়ে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কমপে্লক্স ভবনে এই মেলা শেষ হয়। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জিয়াউল হাসান (এনডিসি), বুয়েটের সাবেক উপাচার্য ড. নজরুল ইসলাম ও বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির সহ-সভাপতি মুনির হাসান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক (ডিজি) মোহাম্মাদ মুনীর চেৌধুরী।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর আয়োজিত এই কর্মসূচির মধ্যে ছিল অলিম্পিয়াড, কুইজ, বিজ্ঞান নাটিকা ও বিভিন্ন উদ্ধাবনী প্রকল্প প্রদর্শনী। দেশের ৬৪টি জেলা থেকে প্রতিযোগিতায় ধাপে ধাপে উত্তীর্ণ হয়ে ৬ শাতাধিক প্রতিযোগী তিনদিনের এই কেন্দ্রীয় প্রতিযোগিতায় অংয়শগ্রহন করে। শিক্ষার্থী, তরুণ বিজ্ঞানী, উদ্ভাবক, শিক্ষক ও অভিভাবক মিলে সহস্রাধিক অতিথির পদচারণায় পুরোসময় মেলা মুখর ছিল।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জিয়াউল হাসান বলেন, বর্তমান সরকারের রূপকল্প ২৯৪১ বাস্তবায়নে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অন্যতম মাধ্যম। বুয়েটের সাবেক উপাচার্য ড. নজরুল ইসলাম বলেন, বিজ্ঞানের জগতে দ্রুত পরিবর্তন আসবে। বর্তমান পটভূমির পরিবর্তন হয়ে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব স্থান করে নিবে।

অনুষ্ঠানে মোট ৪৩ নবীন বিজ্ঞানীকে প্রণোদনা হিসেবে ক্রেস্ট, সনদ, প্রাইজবন্ড এবং নগদ অর্থ দেওয়া হয়। এ বিজ্ঞান মেলা মূলত: তরুণ ও ক্ষুদে বিজ্ঞানদের মধ্যে, জ্ঞান ও প্রতিভার এক অনন্য প্রতিযোগিতায় পরিণত হয়, যা বাংলাদেশের উন্নয়নে এবং সার্বিক অর্র্থনীতিতে প্রভাব ফেলবে।